কিভাবে E TIN Registration Login এবং E TIN Certificate Check করবেন (সকল তথ্য)

5/5 - (44 votes)

E TIN এইটা কি? E tin করলে কি হয়? E TIN Registration Login করবেন কিভাবে? E TIN Certificate করার প্রয়োজনীয়তা কি? E tin Registration Login bd?

এই সব প্রশ্নের উত্তর আজ এই আরটিকেল কাভার করার হবে। আপনি যতই জানেন না কেন তবুও আপনার জানার অনেক কিছু বাকী থাকতে পারে।

তাই আজকের এই আরটিকেলে যা কিছু প্রভাইড করা হবে, তা আশা করি আপনার কাজের হবে। পরবর্তী সময়ে আপনার কখনো খুজা খুজি প্রয়োজন পড়বে না। কারন একই পোষ্টে আপনি সকল তথ্য পেয়ে যাবে E-tin সম্পর্কে। তাহলে চলুন শুরু করা যাক:

আজকের এই আর্টিকেলের রিলেটেড আরো দেখুন: কিভাবে Services nidw gov bd Login ভোটার কার্ড বা পরিচয়পত্র আবেদন ও ডাউনলোড করবেন?

E TIN কি?

E TIN হলো Electronic Tax Identification Number যা তার সংক্ষিপ্ত রূপ হল Etin। আর E TIN হল একটি ১২-সংখ্যার নাম্বার, যা বাংলাদেশের সরকার পরিচালিত জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (NBR gov bd ) দ্বারা জারি করা হয়। সুতরাং E TIN টি হলো আপনার বা আপনি করদাতা হিসাবে পরিচয়পত্র।

আর তাই E TIN হলো একটি স্বতন্ত্র নাম্বার যা একজন Income Tax দাতাদের জন্য জারি করা হয়। এই Number একটি income tax দাতাদের পরিচয় হিসাবে ব্যবহৃত হয়। আর সেজন্য E TIN-এর মাধ্যমে একজন Income tax দাতাদের সহজেই শনাক্ত করা যায়।

E TIN Certificate করলে কি হয়?

আপনি যদি E TIN Certificate করে রাখেন, তাহলে আপনার E tin করার ফলে একজন Income tax দাতাকারী হিসাবে যে সুবিধা গুলা পাবেন সরকার এর পক্ষ থেকে, তার কিছু নিম্নলিখিত সুবিধাগুলি দেয়া হল:

  • আপনি Income Tax রিটার্ন দাখিল করতে পারেন।
  • আপনি সরকারী অনুদান গ্রহণ করতে পারেন ।
  • আপনি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন এবং আলাদা সুবিধা পেতে পারেন।
  • আপনি বীমা পলিসি কিনতে পারেন, যার সুবিধা অনেক।
  • আপনি অন্যান্য সরকারি সুবিধা গ্রহণ করতে পারেন।
  • আপনি Online income করতে পারবেন, যেমন Facebook, Youtube থেকে Adsense এর মাধ্যমে। 

আরো অনেক সুবিধা আছে যা আপনাকে বুঝে নিতে হবে অথবা একটু ঘাটাঘাটি করলে বুঝতে পারবেন E tin Certificate এর সুযোগ সুবিধা গুলা। তাহলে আমরা আরো দেখি নিচের দিকে।

আজকের এই আর্টিকেলের রিলেটেড আরো দেখুন: www Hajj gov bd: বাংলাদেশে Hajj Registration Check ও হজযাত্রীর তথ্য যাচাই সম্পর্কে বিস্তারিত

কিভাবে অনলাইনে আপনি E TIN Registration করবেন?

আপনি অনলাইনে E TIN Registration করতে চাইলে নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করতে হবে:

tin certificate,tin certificate bd,e tin registration,tin certificate bangladesh,e tin certificate,how to create tin certificate,e-tin registration,etin registration online,tin certificate করার নিয়ম,e tin registration bd,e tin certificate registration,tin certificate check online,tin certificate কিভাবে করবো,registration,e tin registration online,e tin registration process,e tin registration bangladesh,how to get tin certificate

ধাপ ১: প্রথমে আপনি NBR এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।

  • NBR gov bd এই ওয়েবসাইট প্রবেশ করুন https://nbr.gov.bd/। আর আপনি এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে “ই-সেবা” বিভাগে ক্লিক করুন।

ধাপ ২: এখন “E-TIN” অপশনে ক্লিক করেন।

  • আপনি উপরের স্টেপ প্রবেশ করার পর “ই-সেবা” বিভাগে “E-TIN” অপশনে ক্লিক করুন।

ধাপ ৩: তারপর আপনি “নতুন নিবন্ধন” বাটনে ক্লিক করুন।

  • এখন আপনি “E-TIN” অপশনে যাওয়ার পর দেখতে পারবেন “নতুন নিবন্ধন” বাটন, আর সেটায় আপনি ক্লিক করুন।

ধাপ ৪: এখন নিবন্ধন এর ফর্ম পূরণ করুন।

  • এখন আপনার সামনে একটি নিবন্ধন ফর্ম চলে আসবে, আর সেটায় আপনি সঠিকভাবে নিবন্ধন করুন। এই ফর্মটিতে আপনার নিম্নলিখিত তথ্যগুলি পূরণ করতে হবে:
  • আপনার নাম (Your Name)
  • আপনার পিতার নাম (Father’s Name)
  • মাতার নাম (Mother Name)
  • জন্ম তারিখ (Date of Birth)
  • আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (NID)
  • আপনার ইমেইল ঠিকানা (Email Address)
  • মোবাইল নম্বর (Phone Number)
  • স্থায়ী ঠিকানা (Permanent Address)
  • বর্তমান ঠিকানা (যদি স্থায়ী ঠিকানা থেকে ভিন্ন হয়) (Present Address)
  • পেশা (Occupation)
  • আয়ের উৎস (Income Source)

ধাপ ৫: প্রয়োজনীয় কাগজপত্র Upload করুন।

যখনি আপনি এই ফর্ম পূরণ করবেন, এরপর আপনি নিম্নলিখিত কাগজপত্রের Scan করা Copy আপলোড করে দিন।

  • আপনি জাতীয় পরিচয়পত্রের উভয় দিক তুলে দিন
  • পাসপোর্ট সাইজের ছবি upload করে দিন

ধাপ ৬: আপনার নিবন্ধন ফি প্রদান করুন।

  • এখন অনলাইন এর মাধ্যমে পেমেন্ট করুন নির্ধারিত নিবন্ধন ফি, তা প্রদান করুন। ফি প্রদানের বিষয়ে বিস্তারিত নির্দেশনা আপনাদের জন্য এই ওয়েবসাইটে দেওয়া থাকবে।

ধাপ ৭: এখন আপনি নিবন্ধন নিশ্চিত করুন।

  • আপনার পেমেন্ট সফল হলে, আপনাকে একটি নিশ্চিতকরণ করার জন্য একটা মেইল পাঠানো হবে।

ধাপ ৮: আর এখন E TIN সার্টিফিকেট ডাউনলোড করুন।

  • এবার নিশ্চিতকরণ মেইল পাওয়ার পর, আপনি Website এ আবার লগইন করে আপনার E TIN সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে পারবেন।

এই ছিল খুব সহজ প্রসেস, আর তাই আপনি আপনার কাজ খুব সহজভাবে কম্পলিট করতে পারবেন। সেজন্য আপনাকে যা করেছেন তাই যতেষ্ট। এখন আরো কিছু জানব, যা আপনাদের জন্য জরুরি।

আজকের এই আর্টিকেলের রিলেটেড আরো দেখুন: কিভাবে www IDTAX gov bd login ভূমি উন্নয়নের কর প্রদান ও জরিমানা পরিশোধ করবেন? বিস্তারিত সহজ উপায়

কিভাবে E tin Registration Login bd করতে পারেন?

বাংলাদেশে E-TIN REGISTRATION করার জন্য Account Login করার কয়েকটা পদক্ষেপগুলি নিম্নরূপ:

  • প্রথমে NBR E tin ওয়েবসাইটে যান:
  • এই লিঙ্কটি ব্যবহার করতে পারেন : https://etaxnbr.gov.bd/: https://etaxnbr.gov.bd/ https://secure.incometax.gov.bd/TINHome
  • এরপর “লগইন” (Login) বোতামে ক্লিক করুন:
  • এটা আপনি Website এর উপরের ডানদিকে এই Button পাবেন।
  • এরপর আপনি আপনার E tin Number এবং Password লিখুন:
  • আপনি নিশ্চিত করুন যে, আপনি উভয় ক্ষেত্রেই সঠিক Information লিখেছেন।
  • আর আপনি “লগইন” (Login) বোতামে আবার ক্লিক করুন:
  • এটি আপনার Credentials জমা করবে এবং আপনাকে Login করার চেষ্টা করবে।

আপনি যদি সফলভাবে Login করেন তবে আপনাকে আপনার E tin Registration Account ড্যাশবোর্ডে পুনঃনির্দেশিত করা হবে।

আর যদি আপনি Login প্রক্রিয়া চলাকালীন কোনও সমস্যার সম্মুখীন হন, তাহলে এই বিকল্পগুলি বিবেচনা করুন:

  • আপনার E tin number অথবা Username ভুল কিনা যাচাই করুন: আপনি নিশ্চিত করুন যে আপনি আপনার E tin Number এবং Password সঠিকভাবে লিখেছেন।
  • Password Reset করার চেষ্টা করুন: যদি আপনি আপনার Password ভুলে গেছেন তবে Password রিসেট প্রক্রিয়া শুরু করতে “Password ভুলে গেছেন?” (Forgot Password?) বোতামে ক্লিক করুন।
  • NBR সহায়তার সাথে যোগাযোগ করুন: আপনি যদি এখনও অসুবিধায় পড়েন তবে সহায়তার জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (NBR) এর সাথে যোগাযোগ করুন।

আজকের এই আর্টিকেলের রিলেটেড আরো দেখুন: কিভাবে আপনি অনলাইনে Smart Card Status Check করবেন | NID smart Card Online 2024

E TIN Certificate করার প্রয়োজনীয়তা কি?

আমরা জানি E TIN Certificate করার প্রয়োজনীয়তা অনেক, তার মাঝে কয়েকটা প্রয়োজনীয়তা এখানে লিখে দেয়া হল:

  • আপনি যদি বাংলাদেশে Income Tax রিটার্ন দাখিল করতে চান।
  • আপনি যদি Govt বা সরকারি অনুদান গ্রহণ করতে চান।
  • আপনি যদি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট (Bank Account) খুলতে চান।
  • আপনি যদি বীমা পলিসি (Life Insurance অথবা  অন্য Insurance) কিনতে চান।
  • আপনি Online income করতে পারবেন, যেমন Facebook, Youtube থেকে Adsense এর মাধ্যমে। 
  • আপনি যদি অন্যান্য সরকারি সুবিধা গ্রহণ করতে চান, তাহলে E-Tin Certificate এর প্রয়োজন রয়েছে।

আর এই সব ক্ষেত্রে E tin certificate এর প্রয়োজন রয়েছে।  এর মাঝে বিশেষ করে E TIN হলো একটি গুরুত্বপূর্ণ নথি যা বাংলাদেশের সকল করদাতার জন্য প্রয়োজনীয়।

E TIN এর সুবিধা

এখানে আমরা জানতে পারব E TIN-এর অনেক সুবিধাগুলি। আর এটি একজন Income Tax দাতাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ Documents যা বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে। E TIN-এর কিছু সুবিধা নিম্নরূপ:

Income Tax রিটার্ন দাখিল:

  • E TIN ছাড়া বাংলাদেশে Income Tax রিটার্ন দাখিল করা যায় না। তাই, যদি আপনি বাংলাদেশে Income Tax দাতা হন, তাহলে আপনার অবশ্যই E TIN থাকতে হবে।

Goverment অনুদান গ্রহণ:

  • বাংলাদেশে অনেক Govt donation রয়েছে যা E TIN ধারীরা গ্রহণ করতে পারেন। তাই, যদি আপনি সরকারি donation গ্রহণ করতে চান, তাহলে আপনার অবশ্যই E TIN থাকতে হবে।

Bank Account Open – ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা:

  • বাংলাদেশে অনেক ব্যাংক E TIN ধারীদের জন্য বিশেষ benefit প্রদান করে। তাই, যদি আপনি Bank Account খুলতে চান, তাহলে আপনার অবশ্যই E TIN থাকতে হবে।

বীমা পলিসি কেনা:

  • বাংলাদেশে অনেক বীমা কোম্পানি, Life insurance এবং অন্যান্য Insurance E TIN ধারীদের জন্য বিশেষ Benefit প্রদান করে। তাই, যদি আপনি বীমা পলিসি Life insurance কিনতে চান, তাহলে আপনার অবশ্যই E TIN থাকতে হবে।

অন্যান্য সরকারি Benefit গ্রহণ:

  • বাংলাদেশে অনেক অন্যান্য সরকারি benefit রয়েছে যা E TIN-ধারীরা গ্রহণ করতে পারেন। তাই, যদি আপনি অন্য কোনও সরকারি benefit গ্রহণ করতে চান, তাহলে আপনার অবশ্যই E TIN থাকতে হবে।

আজকের এই আর্টিকেলের রিলেটেড আরো দেখুন: www surokkha gov bd | টিকা তথ্য ও কিভাবে সুরক্ষা আবেদন, নিবন্ধন এবং ডাউনলোড করবেন? বিস্তারিত

পরিশেষে:

E TIN হলো একজন Income Tax বা করদাতার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ডডকুমেন্ট। এটি একজন Income tax Certificate এবং Income source সহজেই identified করতে সাহায্য করে।

E TIN-এর মাধ্যমে Income tax দাতাদের বিভিন্ন সরকারি Benefit গ্রহণ করতে পারে। E TIN এর Feature Life উজ্জ্বল। বাংলাদেশে Income tax ব্যবস্থার আধুনিকায়নের সাথে সাথে E TIN-এর ব্যবহার আরও বৃদ্ধি পাবে। 

আশা করি আজকের এই আরটিকেলে আপনাদের জন্য বিশেষ কোন এক প্রকার উপকার হবে। আর এই জন্য আপনি এই রকম সকল ধরনের আরটিকেল হেল্পফুল পোষ্ট পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

এখানে আমাদের সাইটের Google News এইটায় ফলো করুন, আর এই সকল ধরনের পোষ্ট পেতে পারেন “Tech Info” ক্যাটাগরিতে। আর Facebook Page অফিসিয়াল পেইজে ফলো করুন, Twitter, Pinterest, এবং Youtube চ্যানেলে Subscribe করে রাখুন Online income Related Idea পেতে। তাহলে আপনি ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।

Related Tag: tin certificate,tin certificate bd,e tin registration,tin certificate bangladesh,e tin certificate,how to create tin certificate,e-tin registration,etin registration online,tin certificate করার নিয়ম,

e tin registration bd,e tin certificate registration,tin certificate check online,tin certificate কিভাবে করবো,registration,e tin registration online,e tin registration process,e tin registration bangladesh, how to get tin certificate

I am the founder of this site. I am a Bangladeshi professional Blogger, Freelancer, Youtuber and Web Designer in Bangladesh. Currently this site’s maximum posts are updated by himself, They are working hard to make this site valuable for all.